বিনয়ী হয়ে বিজয়ী হওয়ার কার্যকর কয়েকটি পরামর্শ

how-to-live-an-inspired-life

বিনয়ী হতে হলে আপনাকে মাত্রাতিরিক্ত লাজুক বা শান্ত হতে হবে এমনটা নয়। আপনি কেবল নিজেকে অন্যদের কাছে জাহির করার প্রবণতা বা নিজের অতিরিক্ত গুণগান করা থেকে বিরত থাকুন। আসুন জেনে নিই কিভাবে নিজেকে বিনয়ী হিসেবে উপস্থাপন করা যেতে পারে।

১) বিরত থাকুন অর্থহীন অহঙ্কার থেকে

শালীনতার প্রথম শর্ত হচ্ছে আত্ম-অহংকার বা বড়াই করার অভ্যাস ত্যাগ করা। আপনি যদি বড় মাপের কিছু অর্জন করে থাকেন তবে সেটা নিয়ে বড়াই করার কিছু নেই। আপনি আপনার কাজ অথবা শিক্ষা নিয়ে গর্বিত হতে পারেন কিন্তু তার মানে এটা নয় যে, যে আপনার অর্জন আপনার সফলতা নিয়ে অতিরিক্ত অহংকার করবেন। মনে রাখবেন ভালো কাজের মূল্যায়ন আপনা আপনি হয়।

২) আপনি কত অর্থ-সম্পদের মালিক এসব আলোচনা এড়িয়ে চলুন

আপনি কত ধনী বা আপনি কত অর্থ উপার্জন করেছেন এসব আলোচনা বন্ধ করুন। আপনার অতিরিক্ত অর্থ প্রাপ্তির সাফল্য-গাঁথা অন্য মানুষের বিরক্তির কারণ হতে পারে। আপনি আপনার সকল প্রাপ্তির গল্প আপনার পরিবার বা কাছের মানুষগুলোর সাথে আলোচনা করুন। চেষ্টা করুন তাদের মতামত নিতে।

৩) নিজের গুণাবলী নিয়ে আলোচনা করবেন না

আপনি বিনয়ী হতে চান? তাহলে নিজের ভেতর যে কিছু বিশেষ গুণাবলী আছে যা আর কারো নেই- এই ধরণের আলোচনা থেকে বিরত থাকুন। আপনি স্মার্ট,মেধাবী ও চতুর এগুলো বলার মধ্যে কোন বাহাদুরি নেই। আপনার যদি ভাল কোন গুণাবলী থেকে থাকে তাহলে মানুষ নিজ থেকেই আপনার প্রতি আকৃষ্ট হবে।

৪)অহেতুক অন্যের কথা-বার্তায় নিজেকে জড়াবেন না

সব সময় নিজেকে অপরের কথা বা আলোচনায় জড়ানোর প্রবণতা ত্যাগ করুন। এমনটা ভাববেন না সবাই আপনাকে তাদের সকল কথা জানাতে চায় বা আপনার মতামত চায়। আপনি তাদের কাজে আসলে তারা আপনাকে নিজে থেকে আলোচনায় আহ্বান জানাবে।

৫) আপনার সাফল্যের পথে অন্যদের সঙ্গী করুন

আপনি কর্মক্ষেত্রে একটি বিস্ময়কর সাফল্য পেয়েছেন? আপনার চারপাশের মানুষদের সাফল্যলাভে অংশীদার করুন। বসকে একটা ধন্যবাদ দিন সাথে কর্মক্ষেত্রের সাথীদের অভিনন্দন জানান আপনার সাথে থাকার জন্য। এতে করে আপনার কাজের কৃতিত্ব কমবে না বরং বাড়বে।

৬) খারাপ কাজের সমালোচনা করুন

বিনয়ী বা শালীনতার মানে এই নয় যে আপনি সবার সব কাজে সম্মতি জ্ঞাপন করবেন। কেউ আপনার সাথে খারাপ আচরণ করলে তার প্রতিবাদ করুন। আপনার সামনে কোন অন্যায় হতে দেখলে ন্যায়ের পক্ষে কথা বলুন।

৭) আচরণে পরিবর্তন আনুন

আপনি বিনয়ী হতে চান, তাহলে নিজের অঙ্গভঙ্গি তথা চলাফেরায় পরিবর্তন আনুন।কারো সাথে কথা বলতে গিয়ে উত্তেজিত হয়ে আঙ্গুল উঁচিয়ে কথা বলার অভ্যাস ত্যাগ করুন। অযথা হাসি বা মাথা ঝাঁকানো এমনকি কারো কথা শোনার সময় এদিক ওদিক তাকানো বন্ধ করুন।

৮)শালীন পোশাক পরিচ্ছদ পড়ুন

খুব বেশী চটকদার বা দৃষ্টি আকর্ষণ করে এরূপ কাপড় এড়িয়ে চলা উচিত। ঠিক একইভাবে বেশি বেশি অলঙ্কার পরা ও সাজগোজ করা থেকে বিরত থাকুন। এমন পোশাকআশাক পরার চেষ্টা করুন যাতে আপনাকে সবার থেকে আলাদা দেখাবে, একইসাথে বিনয়ী দেখাবে।

শুধু মনে রাখবেন “অতি ভক্তি চোরের লক্ষণ।” চেহারায় অতি বিনয়ীভাব না এনে আপনার স্বভাবে বিনয়ীভাব (modesty) প্রকাশ করুন। শালীনতার মধ্যে থেকে সবার সাথে মিশুন, সাহায্য করুন। হয়ে উঠুন সবার পছন্দের ব্যক্তি।

I would like to share my knowledge with others as well as learn the unknown things. “There is no tomorrow, do today whatever you want to do”

(1232)

Related posts:

মন্তব্য

মন্তব্য